1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : গোলাম সরোয়ার মেহেদী : গোলাম সরোয়ার মেহেদী বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : সাখাওয়াত হোসেন সাকা চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : সাখাওয়াত হোসেন সাকা চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  4. [email protected] : রাকিব হাসান হাকন্দ ঢাকা ব্যুরো প্রধান : রাকিব হাসান হাকন্দ ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  6. [email protected] : জুবায়ের চৌধুরী কাজল ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : জুবায়ের চৌধুরী কাজল ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  7. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : শাহ্ জামাল ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : শাহ্ জামাল ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : এম এ সালাম রুবেল রংপুর ব্যুরো প্রধান : এম এ সালাম রুবেল রংপুর ব্যুরো প্রধান
রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ

মধুখালীতে শিক্ষা অফিসারের উদ্যোগে অনলাইন শিক্ষা পদ্ধতি ব্যাপক জনপ্রিয় পেয়েছে

হৃদয় শীল মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি। ইডেটর- জুবায়ের চৌধুরী কাজল
  • আপডেট : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪০ বার দেখা হয়েছে

হৃদয় শীল মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ

ফরিদপুরের মধুখালী শিক্ষা অফিসার জনাব ইসমাইল হোসেনের পরিচালনায় করোনা কালীন সময়ে অনলাইন শিক্ষা পদ্ধতি, সর্বমহলে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। করোনা কালীন দূর্যোগ মূহুর্তে ভার্চুয়াল স্কুল এর মাধ্যমে অন লাইন পাঠদানে তিনি নিজ উদ্যোগে আকাশ আমার পাঠশালা নামক একটি ফেসবুক পেজ চালু করেন এবং উপজেলার প্রতিটি প্রাইমারি স্কুলের দক্ষ শিক্ষকদের নির্দেশ দেন এই পেজের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানোর। মেধাবী শিক্ষক দ্বারা পরিচালিত হওয়ায় পেজটি ব্যাপক জনপ্রিয়তাও অর্জন করেছে, এই পদ্ধতিতে হাজার হাজার ছাত্র ছাত্রীরা উন্নত শিক্ষা অর্জন করতে পারবে।

করোনা কালীন সময়ে সারা বাংলাদেশের স্কুল যখন বন্ধ, তখনো ঘড়ে বোসে নেই ইসমাইল হোসেন, প্রতিটা স্কুলের খোঁজ খবর নিতে পরিদর্শন করছেন স্কুলগুলো, কিভাবে উপজেলার শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা যায় তা নিয়ে শিক্ষকদের সাথে ভার্চুয়াল মিটিং করেন নিয়মিত।

১লা নভেম্বর ২০১৭ সালে ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার শিক্ষা অফিসার হিসেবে যোগদান করার পর তিন বছরের চাকরি জীবনে তিনি দুই দুই বার ফরিদপুর জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা অফিসার হিসেবে নির্বাচিত হন, এই আলোকিত মানুষ যিনি মধুখালীতে যোগদানের কারণে পাল্টে গেছে মধুখালীর প্রাথমিক শিক্ষা ব্যাবস্থার সার্বিক চিত্র, বদলে গেছে অবকাঠামো উন্নয়ন সহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মানসিক চিন্তা চেতনা, ধ্যানধারণা, নৈতিকতার আমুল পরিবর্তন এসেছে।

দক্ষ মেধাবী পরিশ্রমই এই অফিসার তিনি মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার পিয়ারপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন, চার ভাইয়ের মধ্যে তিনি ২য়, সবশেষে লেখাপড়া করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে অনার্স মাস্টার্স , শিক্ষাজিবন শেষ করে তিনি সর্বপ্রথম ঝিনাইদহ জেলার মহেষপুর উপজেলায় ২২, ১০, ২০০৬ সালে উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে যোগদান করেন, এরপর তিনি যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলায় শিক্ষা অফিসার হিসেবে যোগদান করেন, তখান থেকে তিনি যশোর জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা শিক্ষা অফিসার নির্বাচিত হন, এরপর এই স্বনামধন্য শিক্ষা অফিসার যোগদান করেন সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলায় এবং একই জেলার শ্যামনগর উপজেলায়ও তিনি শিক্ষা অফিসার হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন, এখানে চাকুরী কালে তিনি পরপর দুই বার সাতক্ষীরা জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা অফিসার হিসেবে নির্বাচিত হন।

দয়ারামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রোকনুজ্জামান ও বন্দর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাইফুজ্জামান সিমুলের কাছে মধুখালী উপজেলার বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে সকল বিষয় তুলে ধরেন। তাছারা উপজেলার সকল শিক্ষকগন আশাবাদ ব্যক্ত করেন করণাকাল চলে গেলে হৃদয়বান এই মানুষটির হাত ধরেই মধুখালী উপজেলা হবে শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশের এক রোল মডেল।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক শিরোমনি